গুরু পূর্ণিমা কেন হয়? [Guru Purnima 2022] কবে পালিত হবে? গুরু পূর্ণিমার উদ্ভব এবং তাৎপর্য

গুরু পূর্ণিমা কেন হয়? কবে পালিত হবে? গুরু পূর্ণিমার উদ্ভব এবং তাৎপর্য [Guru Purnima 2022] – হিন্দু ও বৌদ্ধ শাস্ত্রী অন্যান্য উৎসবের মতোই গুরু পূর্ণিমার এক বিশেষ ঐতিহ্য আছে। গুরু শব্দটি একটি সংস্কৃত শব্দ যার ব্যাখ্যা করলে এই দাড়াই। গুরু শব্দটি দুটি গু + রু শব্দ নিয়ে তৈরী হয়েছে। গু কথার অর্থ হলো অন্ধকার বা অভিজ্ঞতা। অন্য দিকে রু কথার অর্থ হলো যিনি অন্ধকার দুর করে। সুতরাং গুরু কথার আক্ষরিক অর্থ হল এমন একজন ব্যাক্তি যিনি অন্ধকার দূর করে আলোর পথ দেখান।

গুরু পূর্ণিমা কি উদ্দেশ্যে পালন করা হয় এবং কোনো?

সাহিত্য অনুযায়ী আষাঢ় মাসের পূর্ণিমা তিথি তে জন্মগ্রহণ করেন কৃষ্ণ দ্বৈপায়ন। পরে তিনি বেদব্যাস নামে খ্যাত হন। এখন কৃষ্ণ দ্বৈপায়ন থেকে বেদব্যাস হয়ে ওঠার রহস্য উদঘাটন করবো।

গুরু পূর্ণিমা কেন হয়? [Guru Purnima 2022] কবে পালিত হবে? গুরু পূর্ণিমার উদ্ভব এবং তাৎপর্য

পূর্ণিমা তিথিতে নমুনা নদীর তীরে জন্মগ্রহণ করেছিলেন বলে তাঁর নাম করণ করা হয় দ্বৈপায়ন। গায়ের রং ছিল শ্যাম বর্ণ তাই পরবর্তীতে কৃষ্ণ দ্বৈপায়ন নামে আখ্যায়িত হন। তিনিই প্রথম বেদ শাস্ত্রকে বোধগম্য করেন এবং চারটি ভাগে ভাগ করেন। এই কারণে তাঁর নাম করণ করা হয় বেদব্যাস। এই ভাবেই কৃষ্ণ দ্বৈপায়ন হয়ে ওঠেন বেদব্যাস। তার জন্মদিনই গুরু পূর্ণিমা হিসাবে পালন করা হয়। তার কৃতিত্ব গুলি হলো নিম্নরূপ:-

  • বেদকে চার ভাবে ভাগ করেছেন।
  • হিন্দি ধর্মের ১৮ টি পূরণের রচনা করেন।
  • মহাভারত গ্রন্থের রচনা করেন তিনি।

গুরু পূর্ণিমা কাকে বলে বা আসলে কী?

হিন্দি ধর্মে ১৮টি পূরণের রচয়িতা এবং মহাভারত গ্রন্থের রচনা করে প্রাচীন কাকে যিনি বিদেশ খ্যাতি অর্জন করেছিলেন তিনি হলেন বেদব্যাস। চলতি আছে তিনি হিন্দু ধর্মের মানুষকে অন্ধকার থেকে সরিয়ে এনে আলোর পথ দেখিয়াছিলেন। তাই তাঁর জন্ম দিনকেই গুরু পূর্ণ হিসাবে পালন করা হয়।

গুরু পূর্ণিমার তাৎপর্য কী?

বাংলা ক্যালেন্ডার হিসাবে আষাঢ় মাসের পূর্ণিমা তিথি কি গুরু পূর্ণিমা হিসেবে পালন করা হয়। এই দিন শিক্ষাগুরু ও আধ্যাত্মিক গুরুদের প্রতি বিশেষ শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করা হয়। এই দিন শিক্ষার্থীরা তাদের শিক্ষক তথা গুরুদের প্রতি সমর্পিত হন। হিন্দু ধর্মে এই দিনটাকে ধর্ম গুরু বেদব্যাসকে অভিভাবক এমনকি ঈশ্বরের উপর স্থান দেওয়া হয়েছে। কারণ হিন্দু ধর্ম মতে একজন গুরুই (শিক্ষক) পারে একটি মানুষকে সত্যের আলোয় উপনীত করতে। তাই গুরু পূর্ণিমার দিন শিষ্যরা তার গুরুর প্রতি বিশেষ শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন।

বর্তমান সময়ে এই দিনকে এক বিশেষ নজরে দেখা হয়। ভারতের নানা স্কুল কলেজ ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গুরু পূর্ণিমা পালন করা হয়।

2022 সালে কবে গুরু পূর্ণিমা অনুষ্ঠিত হবে?

যেহেতু বেদব্যাস আষাঢ় মাসের পূর্ণিমা তিথিতে জন্ম গ্রহণ করেন সেই জন্ম তিথি অনুযায়ী ২০২২ সালের ১৩ই জুলাই বুধবার গুরু পূর্ণিমা তিথি পালিত হবে। এই দিন গুরুর পূজা করাহয় এবং পার্থনা করা হয় তাঁর আশীর্বাদ প্রধান করে জীবনকে আলোকময় করে তুলুন।

লগ্নি অনুযায়ী নিম্নের মাঠ করে গুরুর পূজা করা হয়।

লগ্নমন্ত্র
মেষ লগ্নওম বরিষ্ঠায় নমঃ
বৃষ লগ্নওম গুণাকরায় নমঃ
মিথুন লগ্নওম অব্যয়ায় নমঃ
কর্কট লগ্নওম জেত্রে নমঃ
সিংহ লগ্নওম অভিষ্টায় নমঃ
কন্যা লগ্নওম ধনুর্ধরায় নমঃ
তুলা লগ্নওম গিরীশায় নমঃ
বৃশ্চিক লগ্নওম অন্নতায় নমঃ
ধনু লগ্নওম শ্রীমতে নমঃ

উপসংহার:

আশাকরা যায় উপরের তথ্য পরিপাঠ করে আপনারা গুরু পূর্ণিমার সমস্ত তথ্য পাওয়া গেছে। এর পরেও যদি কিছু জানার থেকে তবে আপনারা নিচের বক্সে আপনার নিজস্ব মন্তব্য রাখতে পারেন। আমরা আপনি Feedback এর আদায় থাকবো। ভালো থাকবেন সুস্থ থাকেন।

image_pdfDownload PDFimage_printPrint This Page

Leave a Comment