একটি অসাধারণ বই পড়ার অভিজ্ঞতা [Ekti Boi Porar Oviggota]

প্রারম্ভিক কথাঃ-

বই মানুষের বন্ধু বই পড়ার চর্চা এক মহান অভ্যাস কিন্তু বর্তমান শিক্ষা পরিস্থিতি চাপে পাঠ্য বইয়ের বাইরে বই পড়ার সুযোগ খুব সীমিত তবে আমাদের বিদ্যালয় এর বহু প্রাচীন ও সমৃদ্ধ গ্রন্থাগারের সুবাদে আমার প্রথম পাঠ্য বইয়ের বাইরে বই পড়া শুরু বই পড়ার নেশা থেকে একদিন পড়েছিলাম বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের পথের পাঁচালী বইটি

একটি অসাধারণ বই পড়ার অভিজ্ঞতা [ Ekti Boi Porar Oviggota]

‘পথের পাঁচালী’র কাহিনীঃ-

আমার প্রিয় গ্রন্থ পথের পাঁচালীর কাহিনী সহজ সরল গ্রন্থটি তিনটি পর্বে বিভক্ত বল্লালি বালাই আম মাটির ভেঁপু ও অক্ষর সংবাদ প্রথম পর্বে নিশ্চিন্দিপুর গ্রামের জজমান বৃত্তিধারী এক ব্রাহ্মণ পরিহার রায়ের পূর্বপুরুষ ও দূর সম্পর্কিয়া বিধবা দিদি ইন্দিল ঠাকুরনের প্রসঙ্গ রয়েছে এই পর্বেই নায়ক অপুর জন্ম হয়েছে দ্বিতীয় পর্বে গ্রন্থটির সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশ অপু দুর্গার বিভিন্ন কার্যকলাপ। প্রকৃতির সঙ্গে যেমন বর্ণিত হয়েছে তেমনি অপুর পাঠশালায় যাওয়া স্বপ্ন মুগ্ধতা কল্পনা বিলাসিতা ইত্যাদি প্রসঙ্গ রয়েছে এই পর্বের শেষের দিকে রয়েছে দুর্গার মৃত্যু এবং শ্রী পুত্রসহ হরিহরের নিশ্চিন্দিপুর ত্যাগ তৃতীয় পর্বে স্ত্রী পুত্রসহ হরিহরের কাশী গমন। কথ কথাবৃত্তির সাহায্যে সংসার নির্বাহ অসুস্থতা ও তার মৃত্যু দেখানো হয়েছে।

আমার উপলব্ধিঃ-

পথের পাঁচালী উপন্যাসটি পরে আমার মনে হয়েছে লেখক এই কাহিনী কে গভীরতম উপলব্ধি থেকে নির্মাণ করেছেন অপুর জীবন দর্শনের মাধ্যমে তিনি জীবনের পথ চলার গুহার কে সহজ করে দিয়েছে।

হরিহরের সঙ্গে অপুর প্রথম বাড়ির বাইরে যাওয়া মায়ের মুখে মহাভারতের গল্প শুনে কর্ণের জন্য অস্ত্রপাত দিদি দুর্গার সঙ্গে আমি পুরনো রেল গাড়ি দেখতে যাওয়ার রোমাঞ্চ আবার কখনো নিঃসঙ্গ অবস্থায় গ্রামের প্রতি অদ্ভুত মামত্ববোধ এমন সব বিবরণ বারবার পাঠ করেও যেন চির নতুন মনে হয় এ গ্রন্থে বিভূতিভূষণের শিল্পী সপ্তাহ হল অপু অপর চোখ দিয়েই তিনি এ উপন্যাসের কাহিনী বর্ণনা করেছেন অপু তার শৈশবের অপর বিষয় দিয়ে জীবনকে উপভোগ করেছে পাশাপাশি অপ উপলব্ধি করেছে অবশ্যম্ভাবী মৃত্যুর স্বরূপ পিসি ইন্দিপ থাকুন দিদি দুর্গা এবং পিতা হরিহরের মৃত্যু অপুকে মানব জীবনের সত্য উন্মোচনের পথে নিয়ে গেছে। এসব পড়তে পড়তে ভাবতে ভাবতে আমার মনে হয়েছে জীবনটা আসলে একটা পথ সকল মানুষকেই সেই পথ অতিক্রম করতে হয়।

চলার পথে থাকে প্রতিবন্ধকতা অনেক দুঃখ তবু তবু পথিকের পথ চলাতেই আনন্দ এ উপন্যাস পড়তে পড়তে তাই আমার মনে হয়েছে গদ্যে রচিত হলেও এ গ্রন্থের এক একটি অংশ যেন কাব্য রসে সম্পৃক্ত।

আমার অভিজ্ঞতাঃ-

ভারতীয় সভ্যতা পরিবার ভিত্তিক এই পরিবার ভিত্তিক সভ্যতায় মা বাবা ভাই বোন ছেলেমেয়ে আত্মীয় পরিজনের মধ্যে পারস্পরিক সম্পর্কের এক নিবিড় বন্ধন এই বন্ধন চিত্র পথের পাঁচালী উপন্যাসে এতটাই আন্তরিক যে এ গ্রন্থ বারবার আমাকে আকর্ষিত করে এ গ্রন্থে অনেক মৃত্যু আছে দক্ষ দারিদ্র্যের অবতারণাও আছে তবু প্রকৃতির চিরন্তন সৌন্দর্য কন্যার প্রতি পিতার স্নেহ কিংবা মায়ের প্রতিপত্রের অকৃত্রিম ভালবাসা যেন জীবনের এক মহার্ঘ্য আনন্দের সব বহন করে আনে তাই মনে হয় এই উপন্যাস কোন এক বিশেষ যুগের না হয়ে সত্য ও সৌন্দর্যের সংমিশ্রণে হয়ে উঠেছে চিরকালের

উপসংহারঃ-

আমার মনের মনি কোথায় স্থান পেয়ে যাওয়া উপন্যাসটির নাম পথের পাঁচালী এই উপন্যাসে কিন্তু কোন আদর্শের পরিকল্পনা নেই সমাজের গভীর সমস্যা কি এখানে চিহ্নিত করা হয়নি এমনকি এর পরিধির বিশালতাও নেই তবুও এ উপন্যাস আমার কাছে অসাধারণ অপ্রিয় সেসব থেকে কৈশরের এই যে কাল আমি অতিক্রম করেছি তার সঙ্গী ও ভবিষ্যতের পাথেয় যেন এই পথের পাঁচালী। জীবনে অনেক আনন্দ আছে। যা অশ্রুপাত ঘটিয়ে মনকে আরো পবিত্র করে তোলে পথের পাঁচালী উপন্যাস পাঠের অভিজ্ঞতা আমার কাছে পথ শব্দটির গভীর তাৎপর্য নিয়ে আসে উপন্যাসটি আমার জীবনে অভিজ্ঞতা কি সমৃদ্ধ করে

image_pdfDownload PDFimage_printPrint This Page

Leave a Comment