আরাফাতের দিন কবে? আরাফার দিবস 2022 | কিভাবে উদযাপন করা হয়। Arafat Day

আরাফাতের দিন কবে? জানতে চান আরাফার দিবস অর্থাত্ Arafat Day কবে উদযাপন করা হয়। এই দিনের বৈশিষ্ট্য গুলি কিকি? এই সবই জানবো আমরা এই পোস্ট এর মাধ্যমে। আসা করি এই পোস্টটি প্রত্যেক মুসলমান ভাইবোনের ভালো লাগবে। তবে চলুন জেনে নেওয়া যাক ইসলামের এই বিশেষ দিনটির কথা।

আরাফাতের দিন কবে? আরাফার দিবস 2022 | কিভাবে উদযাপন করা হয়।

Read More – Bornoporichoy Latest Update and Trending News

আরাফাত দিবস কি (What is আরাফাত Day)

আরফা একটি পাহাড়। আনুমানিক ১৩০০ বছর আগে নবী এই পাহাড়ের চূড়ায় দাঁড়িয়ে মক্কা শহরের মানুষদের সামিল হওয়ার আওহান জানান । তার পর তিনি তাঁর বিদায়ী চুড়ান্ত খুদ্বা প্রদান করেন। প্রায় ১,০০,০০০ অনুগামীদের নিকট দাঁড়িয়ে তিনি বলেছিলেন সর্বশক্তিমান আল্লাহ ইসলাম ধর্মের উপর তাঁর আশীর্বাদ ও ভালোবাসা প্রদান করেছেন।

এই অর্থে ইসলাম ধর্ম শ্রেষ্ঠ এবং সকল অনুপ্রেরিত ও অনুগামীরা যেন ইসলাম ধর্মকে যেনো আপন করে নেন। আল্লাহর ও ইসলাম ধর্মের প্রতি ভালোবাসা ও প্রীতি ব্যাপ্তি করেন ।

এর পর থেকেই অনুগামীরা নবীজির শেষ খুদ্বার দিনটিকে আরাফাতের দিন হিসাবে আখ্যা দেন এবং আরাফাহ দিবস হিসাবে পালন করেন।

আরাফাতের দিন কবে পালন করা হয়?

ইসলাম ধর্মে পরিপূর্ণতার দিন হিসাবে এবং একটি বিশেষ পবিত্র দিন হিসাবে আরাফাহ (আরাফাতের দিন) দিবস পালন করা হয়। রমজান মাসের শেষ হওয়ার পর প্রায় ৭০ দিন পরে আরাফাহ দিবস পালন করা হয় যা ইসলিক জিলহজ মাসের ৯ তারিক বিবেচনা করা হয়।

আরাফাহ দিবসের বিশেষ কিছু করণীয়গুলো?
  • নিজেকে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখবো।
  • এই দিন রোজা রাখবো।
  • সময় মতো নামাজ পড়বো।
  • নিজেকে পাপ থেকে দূরে রাখার নিয়ত করবো।
  • আল্লাহর কাছে পাপের ক্ষমা চাইবো।
  • পাঁচ ওয়াকত নামাজ পড়ব।
  • আল্লাহর পথে চলবো।
  • কুরআন শরিফ তালাওয়াত করবো।
  • পরিবার সকলকে আল্লাহর রাস্তায় চলার প্রেরণা প্রদান করবো।

আরাফাতের দিন কিভাবে উৎযাপন করা হয়?

এই সময় দেশ বিদেশ থেকে লাখ লাখ মানুষ হজ করার জন্য আরব দেশে আসেন। আরাফাহ দিনের শেষের দিকে হজ যাত্রী গণ আরাফা পাহাড়ের পার্শ্ববর্তী সমতল ভূমিতে এসে উপস্থিত হন এবং নবীজির শেষ বাণী অনুধাবন করার চেষ্টা করেন এবং নিজেকে সমস্ত পাপ থেকে দূরে সরে থাকার প্রার্থনা করেন।

আরাফার দিন কি করা উচিৎ?

যেমনটি আমরা বলেছি এটি একটি ইসলামিক পবিত্র দিন। এই দিন যদি রোজা রাখা হয় এবং পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়া হয় তবে মনে করা হয় সেই মানুষের করে আসা সমস্ত পাপ ওর পরবর্তীতে ভুল বসত করে ফেলা পাপের শাস্তি সম্পূর্ণ মুছে ফেলা হবে।

হাদিসের উদৃতি অনুসারে নবী মোহাম্মদ বলেছেন আল্লাহ এই দিন মানুষকে সব থেকে বেশি মানুষকে শাস্তি ও আগুন থেকে মুক্তি দেন। যা তিনি অন্য কোনো দিনে দেননা। একদিন তিনি ফেরেশতাদের সম্মুখীন হন এবং জিজ্ঞাসা করেন এই মানুষ গুলো কি চাইছে?

2022 সালে কোন দিন ফারাহাতের দিন পালিত হবে?

বিভিন্ন দেশে সময়ের অন্তর হিসাবে এই দিন পালন করার দিন ভিন্ন ভিন্ন। তবে আরব দেশে সময় o তারিক অনুযায়ী ৯ জুলাই 2022 উৎযাপিত হবে।

সর্বপরি আমরা নিয়ত করি এই দিনটি তে আমরা সময় মত নামাজ আদায় করব এবং রোজা রাখবো। নামাজের সময় আল্লাহর কাছে হাত তুলে আমরা আমাদের জীবনের সমস্ত জানা অজানা ভুলের ক্ষমা চাইবো এবং জান্নাত বেশি হওয়ার জন্য আল্লাহর কাছে সঠিক পথের সঞ্চারিত হওয়ার জন্য আল্লাহর কাছে দুয়া পর্থনা করবো।

image_pdfDownload PDFimage_printPrint This Page

Leave a Comment